জ্যোতিষকথা

মাঘী পূর্ণিমার দিন করুন এই কাজ, থাকবেনা অর্থের অভাব

মাঘী পূর্ণিমা হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্মানুসারীদের নিকট অত্যন্ত পবিত্র। মাঘী পূর্ণিমা ২০২০ পালিত হচ্ছে আজ ৮ ফেব্রুয়ারি ও আগামীকাল ৯ ফেব্রুয়ারি। মাঘী পূর্ণিমায় পূজা অর্চনার মাধ্যমে পূণ্য লাভ হয়। সকল প্রকার মোহ ও ক্লেশ বিনাশ এবং আত্ম শক্তির উন্নয়ন এ দিনটির মূল তাৎপর্য। মাঘী পূর্ণিমার দিন কিছু বিশেষ টোটকা বা কাজ করলে আপনার জীবনে মঙ্গল ও শুভ বার্তা নিয়ে আসবে। চলুন তবে জেনে নিই মাঘী পুর্ণিমায় কি করলে অধিকতর সাফল্য লাভ করা যায়।

আরো পড়ুনঃ মাঘী পূর্ণিমা ২০২০ কবে? মাঘী পূর্ণিমার গুরুত্ব ও মাহাত্ম্য

মাঘী পূর্ণিমার টোটকা

  • মাঘী পূর্ণিমার দিন সকালে গঙ্গাস্নান করা একটি পূণ্য কাজ। তবে গঙ্গায় স্নান করা  সম্ভব না হলে যেকোন নদী বা পুকুরেও স্নান করা যাবে। মা গঙ্গাকে স্মরণ করে স্নান করলে মনের সকল মনোবাসনা পূর্ণ হয় বলে বিশ্বাস।
  • দান করা হিন্দু ধর্মে পূণ্য কাজ বলে বিবেচিত। মাঘী পূর্ণিমার দিন দান করলে অধিক পূণ্য লাভ হয়।
  • মাঘী পূর্ণিমাতে সারাদিন উপবাস থেকে সন্ধ্যাবেলায় মা লক্ষ্মীর আরাধনা করলে সংসারে শ্রীবৃদ্ধি হয় এবং সংসারে কখনও অভাব থাকেনা। মা লক্ষ্মীর পাশাপাশি বিষ্ণুদেবের আরাধনা করলে সমান পূণ্য পাওয়া যায়। যারা আর্থিক কষ্ট ভোগ করছেন, তাঁরা এদিন সত্যনারায়ণ ও লক্ষ্মী দেবীর পুজো করতে পারেন।
  • মাঘী পূর্ণিমার দিন আপনার বাড়িতে কোন ভিক্ষুক আসলে, তাঁকে পারতপক্ষে খালি হাতে ফেরাবেন না। কিছু না কিছু তাঁকে দান করার চেষ্টা করুন।
  • মাঘী পূর্ণিমার দিন সকালে স্নান সেরে, বিশুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করে একটি ঘিয়ের প্রদীপ নদীর জলে ভাসিয়ে দিন।
  • একটি পাত্রে হলুদ, সিঁদুর ও ঘি একসাথে মিশিয়ে মাঘী পূর্ণিমার দিন সকালে বাড়ির সদর দরজার ওপরে একটি স্বস্তিক চিহ্ন আঁকুন। এর ফলে বাড়িতে পজিটিভ শক্তির সৃষ্টি হয়।
  • মাঘী পূর্ণিমার দিন মা লক্ষ্মীর সামনে ১১টি কড়িকে হলুদের তিলক দিয়ে পূজা করুন এবং পূজা সমাপান্তে কড়িগুলো লাল কাপড়ে বেঁধে ক্যাশবাক্স বা আলমারিতে রাখুন।

মাঘী পূর্ণিমার দিন উপরোক্ত টোটকাগুলো অনুসরণ করলে আপনার জীবন সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধিতে ভরে ওঠবে।

আরো পড়ুনঃ 2020 হিন্দু ক্যালেন্ডার: তারিখ ও উৎসব

Leave a Reply

Back to top button
close
error: Content is protected !!