আচার ও সংস্কার

যেকোন শুভ কাজে কেন নারকেল ফাটানো হয় জানেন?

যেকোন শুভ কাজে কেন নারকেল ফাটানো হয় জানেন?

সনাতন হিন্দু ধর্মানুসারীদের পূজা অর্চনায় দেবতার প্রসাদ হিসেবে নারকেলকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ফল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সাধারণত যে অঞ্চলে যে জিনিসের প্রাচুর্য থাকে, সেটিই হয়ে যায় দেবতার প্রধান প্রসাদ। তাই তো উত্তর ভারতের তুলনায় দক্ষিণ ভারতে নারকেলের প্রচলন খুব বেশী। দক্ষিণে নারকেল গাছকে খুবই পবিত্র হিসেবে মানা হয়।

হিন্দু পুরাণ অনুসারে, বিশ্বামিত্র মুনি নারকেল সৃষ্টি করেছিলেন। নারকেলকে মহাফল নামেও অভিহিত করা হয়। সনাতন হিন্দু সংস্কৃতির বিভিন্ন আচার ও সংস্কারের সাথে জড়িয়ে রয়েছে নারকেল। যেকোন শুভ কাজের আগে নারকেল ফাটানো তো হিন্দু রীতিনীতির অন্যতম অনুষঙ্গ। সনাতন পন্ডিতের আজকের আয়োজনে আমরা জেনে নেব, মন্দিরে দেবতার সামনে নারকেল কেন ফাটানো হয়?

আরো পড়ুনঃ ৫১ শক্তিপীঠের বর্তমান অবস্থান এবং কোথায় সতীর কোন অঙ্গ পড়েছিল জেনে নিন

বিভিন্ন সমাজবিজ্ঞানীর মতে, এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে নরবলির প্রাচীন রীতি। নরবলি বর্তমানে নিষিদ্ধ। কিন্তু এর পরিবর্তে ব্যবহার করা হয় নারকেল। মানব মাথার সাথে নারকেলের সাদৃশ্যের কারণে এমনটি ধারণা করা হয়। প্রাচীন পর্তুগীজ ও স্প্যানিশ ভাষায় ‘কোকো’ মানে মানুষের মাথা। সেখান থেকেই ‘কোকোনাট’ শব্দটির সৃষ্টি।

নারকেলের ‘চোখ’ এর কারণেও ধরে নেয়া হয়, এটি আসলে নরমুণ্ডের প্রতীক। এছাড়া এটাও বলা হয়, নারকেল ফাটানো মানে নিজের অহঙ্কারকে ঈশ্বরের সামনে বিসর্জন দেওয়া।

আরো পড়ুনঃ জানেন কী দেবী সরস্বতী আসলে কে? দেবী সরস্বতীর জন্ম, প্রণয়, বিবাহ সবই জটিল সম্পর্কের আবর্তে ঘূর্ণায়মান!

Leave a Reply

Back to top button
close
error: Content is protected !!